করোনা: এবারের হজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত কী?

ভোলা প্রতিদিন অনলাইন: করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসমাগম এড়াতে সৌদি আরবসহ বিশ্বব্যাপী নানা ধরনের ধর্মীয় জমায়েত স্থগিত বা সীমিত করা হয়েছে। সৌদির মক্কায় পবিত্র কাবা শরীফ এবং মদিনায় মসজিদে নববীতে জামাতে নামাজ আদায়ও নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। এমন প্রেক্ষাপটে মুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় বিধি এবারের হজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত কী?

বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের মুসলমানরা কি এবার যথাযসময়ে হজ পালন করতে পারবেন? নাকি অন্যান্য ধর্মীয় জমায়েতের মতো হজও এবার স্থগিত থাকবে?

বিশ্বের কোটি কোটি মুসলমান যখন এ নিয়ে অনিশ্চতার মধ্যে আছেন, তখন সৌদি আরবের হজমন্ত্রী মোহাম্মদ বাতেন হজ পালনের প্রস্তুতি সাময়িকভাবে মুলতবি রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস নিয়ে অনিশ্চিত পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার প্রেক্ষাপটে তিনি এ আহ্বান জানান।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমন তথ্য জানানো হয়।

সৌদি আরবের হজমন্ত্রী বলেন, ‘পবিত্র হজের জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে সৌদি আরব পুরোপুরি প্রস্তুত। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে যখন মহামারি আকারে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে, তখন সৌদি আরব মুসল্লি ও নিজের দেশের নাগরিকদের সুরক্ষার কথা ভাবছে। এই পরিস্থিতির পরিবর্তন না হওয়া পর্যন্ত মুসলিম সম্প্রদায়কে পবিত্র হজ পালনের প্রস্তুতি নিয়ে অপেক্ষায় থাকার পরামর্শ দিচ্ছি আমরা।’

পবিত্র হজের বিষয়ে স্পষ্ট জানার জন্য আরেকটু অপেক্ষা করতে বলেন তিনি। এর আগে সৌদি আরব ওমরাহ স্থগিত করেছিল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে।

বিশ্বের নানা দেশের ২৫ লাখের মতো মুসলমান প্রতি বছর সৌদি আরবে পবিত্র হজ পালন করেন। সৌদি আরবের রাজস্ব আয়ের একটি বড় অংশ আসে পবিত্র হজ ও ওমরাহর আয়োজন থেকে।

সৌদি আরবে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস আক্রান্ত বলে দেড় হাজারের মতো রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মারা গেছে ১০ জন। বাংলাদেশে এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৪ জন, মারা গেছেন ৬ জন। মোট আক্রান্তের মধ্যে ২৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন।