স্বাধীনতা দিবস: করোনায় আ.লীগ-বিএনপির সব কর্মসূচি বাতিল

করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে স্বাধীনতা দিবসে আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির সব কর্মসূচি বাতিল করা হয়েছে।

সোমবার আওয়ামী লীগের পক্ষে এমন ঘোষণা দেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, আর বিএনপির পক্ষে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ তথ্য জানান।

সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন ওবায়দুল কাদের। এরপর বিকেলে বিএনপি মহাসচিব সংবাদ সম্মেলন করেন।

এসময় স্বাস্থ্যবিধি সতর্কভাবে মেনে চলার আহ্বান জানানও জানান কাদের। প্রয়োজনে সরকার নিয়োজিত হট লাইনে ফোন করাও পরামর্শ দেন।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে এ মুহূর্তে কোনো খাদ্য সংকট নেই, বাজারে গুজব সৃষ্টি করে অপ্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রী বিক্রি করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠিন অবস্থান গড়ে তুলতে হবে।

“বাজারে কেউ যদি অহেতুক পণ্য মজুদ করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। করোনা ভাইরাসকে যুদ্ধ মনে করে এর মোকাবেলায় নিজের পাশাপাশি অন্যকে সহযোগিতা করতে হবে। এ সময় সকলকে দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে।”

রাজনৈতিক ইস্যু না খুঁজে সবাই মিলে আসুন করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার আহ্বানও জানান ওবায়দুল কাদের।

অন্যদিকে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের অদূরদর্শীতাকে দায়ী করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনিও সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান।

এর আগে গত শনিবার করোনা ভাইরাসে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে এ বছর ২৬শে মার্চ জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ অনুষ্ঠান এবং বঙ্গভবনে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

এছাড়াও স্বাধীনতা পদক বিতরণ অনুষ্ঠান স্থগিত করারও সিদ্ধান্ত জানানো হয়।